AndroidAppTech Newsবাংলা টেক নিউজ

আবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ব্যান করা হল ১৫টি চিনা অ্যাপ, দেখেনিন এর তালিকা (Banned 15 Chinese Apps)।

Banned 15 Chinese Apps- গলওয়ানে সংঘাতের পর ভারত সরকার প্রায় 59 এর উপরে চিনা অ্যাপ ব্যান করেছে। এবার আরও প্রায় ১৫টি চিনা অ্যাপ ব্যান করল সরকার। এই তালিকায় নাম উঠে এসেছে ByteDance এর মালিকানাধীন ভিডিয়ো এডিটিং অ্য়াপ CapCut এবং Xiaomi কোম্পানির ব্রাউজার অ্য়াপ।

Banned 15 Chinese Apps

এছাড়া সরকারের নজরদারির আওতায় আরও ২৭৫টি চিনা অ্য়াপ রয়েছে। এই সব অ্যাপ ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা বা গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্য সংক্রান্ত নীতি উলঙ্ঘন করছে কি না, তা খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে সরকারের পখ থেকে।

Chines App Banজাতীয় নিরাপত্তার ও সার্বভৌমত্ব পরিপেক্ষিতে গত জুন মাসে মোট 59 টি চিনা অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ করা হয়। এই তালিকায় ছিল সবথেকে জনপ্রিয় ভিডিয়ো শেয়ারিং অ্যাপ TikTok, আলিবাবা কোম্পানির UC Browser, ভিগো ভিডিও, ফাইল শেয়ারিং অ্যাপ Xender, এবং Xiaomi কোম্পানির Mi Community অ্যাপগুলিও।

আরও পড়ুনঃ ভারতে লঞ্চ হতে চলেছে Redmi এর সবথেকে সস্তা স্মার্টফোন।

গত কয়েক দিনের মধ্যে আরও প্রায় 47 টি চিনা অ্যাপের উপরে শাস্তির খাঁড়া নেমে আসে। এর মধ্যে নিষিদ্ধ অ্য়াপগুলির ক্লোন বা সাধারণ অন্য ভার্সান অ্যাপ রয়েছে। দ্বিতীয় দফায় ভারতে নিষিদ্ধ হওয়া অ্যাপ এর তালিকায় ছিল Tiktok লাইট, Shareit লাইট, Helo লাইট, ও VFY লাইট অ্যাপ।

গত দিন দশকের মধ্যে যে সব চীনা অ্যাপ ভারতে ব্যান করা হয়েছে তার মধ্যে শর্ট ভিডিয়ো অ্যাপ Meipai, ছবি এডিটর অ্যাপ AirBrush, চিনা সংস্থা Meitu-এর ক্যামেরা অ্যাপ BoXxCAM। প্রথম দফায় যে সমস্ত অ্যাপ নয়াদিল্লি ব্যান করেছিল তার মধ্যে Meitu অ্যাপটিও ছিল। এছাড়া ব্যান করা হয়েছে ইমেল সার্ভিস অ্যাপ NetEase, QuVideo-এর গেমিং অ্যাপ Heroes War ও SlidePlus অ্যাপ।

এর আগেও Xiaomi কোম্পানির Mi Community অ্যাপ ব্যান করা হয়েছিল। এবার সরকার ব্যান করলো Mi Browser Pro অ্যাপ। এছাড়া চিনের মোস্ট পপুলার ব্রাউজিং অ্যাপ Baidu Search এবং Search Lite অ্যাপও ব্যান করা হয়েছে।

জুন মাস ব্যান করা অ্যাপ এর তালিকা সরকার প্রকাশে আনেনি। এবার এই ব্যান অ্যাপ এর তালিকা প্রকাশে আনা হয় নি। এই বিষয়ে সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের পক্ষ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করা হয়নি।

আরও পড়ুনঃ আমেরিকারন কোম্পানি AVITA ভারতে নিয়ে এসেছে নতুন ল্যাপটপ AVITA Liber V, দেখেনিন ফিচার।

চিনা সংস্থা Baidu ভারত সরকারের অ্যাপ ব্যানের সিদ্ধান্ত সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করেনি। অন্যদিকে, ভারতের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত Xiaomi কোম্পানির মুখপাত্র জানিয়েছেন, তাঁরা সমস্ত পরিবর্তিত পরিস্থিতি অনুধাবন করছেন এবং সঠিক সময়ে পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
close